শুক্রবার, ১২ এপ্রিল, ২০১৯ ইং ২৯ চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ,৬ শাবান, ১৪৪০ হিজরী

‘ব্যক্তির দোষ কখনো কোন সম্প্রদায় বা প্রতিষ্ঠান বহন করবে না’

AmaderIslam.COM
এপ্রিল ১২, ২০১৯
news-image

আমিন ইকবাল : মাদ্রাসায় ছাত্রীর শ্লীলতাহানি বা হত্যার বিচার চাইতে গিয়ে যারা আবেগপ্রবণ ভাবে মাদ্রাসা বন্ধ করার দাবি করছেন তাদের চেয়ে মূর্খ দুনিয়াতে দ্বিতীয়টা নাই। কারণ প্রতিষ্ঠান কখনো ব্যক্তি দোষের দায় বহন করে না। তাহলে স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় বহু আগেই বন্ধ হয়ে যেতো। ক্লাস ফাইভের বাচ্চা স্কুলের প্রধান শিক্ষক দ্বারা গর্ভবতী হয়ে আছে। তাহলে প্রাথমিক বিদ্যালয় কি বন্ধ করে দিতে হবে?

এভাবে হাইস্কুল কলেজ ও ভার্সিটির ভিসি পর্যন্ত যৌন কেলেঙ্কারির সাথে যুক্ত। তাহলে কি এগুলো বন্ধ করে দিতে হবে? নাকি শুধু মাদ্রাসা বন্ধ করবেন? অবশ্য মাদ্রাসা নাস্তিক ও বিধর্মী ছাড়া কারো চোখের বালি এখনো হয়নি। কয়েকদিন আগে জবির ছাত্রী হোস্টেলে একটা নবজাতক শিশু পাওয়া যায়। পরবর্তীতে হাসপাতালে মারা যায়। এখন কি জবি বন্ধ করে দিতে হবে?

একটা ছেলের লাশ পাওয়া গেছে মসজিদে এবং একটা ছেলের লাশ পাওয়া গেছে মাদ্রাসায়। এদের হত্যাকান্ডের সাথে জরিতদের বিচার হওয়া উচিত এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্থি হওয়া উচিত। তার মানে এই না যে ধর্ম হিসেবে ইসলাম খুব খারাপ বা মসজিদ মাদ্রাসা বন্ধ করে দেয়া উচিৎ। তাই যদি হয় তাহলে আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ করতে হবে। কারণ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদের লাশ অনেক আগে থেকে পাওয়া যায়।

ভাই ছ্যাচড়ামি করেন আর ফাতরামি করেন। কিন্তু নিজের গাঢ় ঠিক রেখে কইরেন। নইলে পেছন থেকে কে কখন গাঢ় মেরে দিয়ে যাবে বুঝতেই পারবেন না। আবারো বলছি সময় থাকতে সচেতন হোন। ন্যায়ের পক্ষে কথা বলুন। ব্যক্তির দোষ কখনো কোন সম্প্রদায় জাতি গোষ্টি কিংবা তাদের প্রতিষ্ঠান বহন করবে না।

দোষীর কখনো জাতি বা বর্ণ নাই। অপরাধের বিচার হবে। অপরাধীর শাস্তি হবে এটাই স্বাভাবিক। (ফেসবুক থেকে)